কৈ মাছ চাষের পুকুরের পানি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী

QuestionsCategory: Aquacultureকৈ মাছ চাষের পুকুরের পানি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী
1 Answers
Anonymous answered 4 years ago

কৈ মাছ চাষের ক্ষেত্রে প্রতিদিন নিয়মিত হারে আমিষ সমৃদ্ধ খাবার প্রয়োগ করায় মাছের মলমুত্র এবং খাবারের উচ্ছিষ্ট পানিতে পঁচে পানির নাইট্রোজেন ঘটিত জৈব পদার্থের উপস্থিতি বেড়ে যায় ফলে মাছ নানা প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকে। মাছের মৃত্যুর কারণ হয়ে দেখা দিতে পারে।
অনেক সময় অসচেতনতাবশত পঁচে যাওয়া খাদ্য উপকরণ মাছের পুকুরে দেয়া হয়। অধিক পঁচে যাওয়া এসব জৈব দ্রব্য পুকুরে দেয়া সমীচীন নয়। কারণ এতে পুকুরের পানির পরিবেশ নষ্ট করে, অক্সিজেন ঘাটতিসহ মাছে উকুনের বংশবিস্তার ঘটায় এবং এদের আক্রমণে মাছের জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়।
এছাড়াও পুকুরে জৈব উপাদানের বৃদ্ধির কারণে প্ল্যাংঙ্কটনিক ব্লুম ঘটতে পারে এবং এক পর্যায়ে প্ল্যাংঙ্কটনের যথাযথ পরিবেশ বিঘ্নিত হয় এবং প্ল্যাংঙ্কটনের অপমৃত্যু ঘটায়, ফলশ্রুতিতে পুকুরের পানির সার্বিক পরিবেশের মারাত্বক বিপর্যয় ঘটে এবং মাছের মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এরূপ পরিবেশে প্রথমে মাছের খাদ্য গ্রহণ হার কমে যায়, মাছের বৃদ্ধি থেমে যায় এবং এক পর্যায়ে বিপুল হারে মাছ মারা যায়।
এরূপ পরিবেশ যাতে না হয় সেজন্যে পানির রং এর অবস্থা অনুযায়ী মাঝে মধ্যে পানি দেয়া যেতে পারে, অথবা পুকুর থেকে কিছু পানি বের করে দিয়ে পুনরায় পানি সংযোগ করা যেতে পারে।
কৈ মাছের চাষ নিরাপদ রাখার জন্য সময়ে সময়ে প্রতি শতকে ২৫০ গ্রাম হারে চুন প্রয়োগ করা যেতে পারে। পুকুরের পানির পরিবেশ ভাল রাখার জন্য বর্তমানে বাজারে নানা ধরনের জিওলাইট ও অণুজীব নাশক পাওয়া যায়, যা প্রয়োগে সুফল পাওয়া যায়।
তথ্যসূত্র: DoF